ইনসেপশন: স্বপ্ন আর বাস্তব জগতের গোলকধাঁধা

অন্য কারো স্বপ্নে ঢুকে তার মনের গহীনে থাকা তথ্য বের করে আনা কিংবা কারো মন-মানসিকতা বদলে দেয়া! স্বপ্নের ভেতরে স্বপ্ন, তার ভেতরে আবার স্বপ্ন! যেনো অন্য এক কোয়ান্টাম ইউনিভার্স। কী হবে যদি আপনি স্বপ্নের জগতে আটকা পড়ে যান? স্বপ্নই হয়ে উঠে আপনার বাস্তবতা? ক্রিস্টোফার নোলানের নাম শুনলে সবার আগে যেটা মাথায় আসে তা হলো মস্তিষ্কে প্যাঁচ লাগিয়ে দেবার মতো মুভি। ডার্ক নাইটের পর নোলানের যেই মুভিটি সবচাইতে দর্শক সমাদৃত, লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও অভিনীত সেই সিনেমা “ইনসেপশন” ২০১০ সালের আজকের দিনেই মুক্তি পায়।

লুসিড ড্রিমসের একটি গল্প নিয়ে ২০০১ সালে নোলান হাজির হয়েছিলেন প্রোডাকশন কোম্পানি ওয়ার্নার ব্রোসের কাছে। তার ইচ্ছে ছিলো, স্বপ্ন নিয়ে একটা হরর মুভি বানাবার। কিন্তু প্রোডাকশন শুরুর আগে তিনি ভেবে দেখলেন, স্বপ্ন নিয়ে একটা মুভি বানাতে হলে যেনতেন গল্প হলে চলবে না। তাই আপাতত তার এই গল্প পাশে রেখে দিয়ে সামনের সাত বছর নোলান কাজ করবেন ব্যাটম্যান বিগিনস, দ্যা প্রেস্টিজ এবং দ্যা ডার্ক নাইটের মত মুভি নিয়ে। প্রায় ছয়মাস ধরে গল্প কাটছাঁট করবার পর ২০০৯ সালে ওয়ার্নার ব্রো’স নোলানের গল্পসত্ত্ব কিনে নেয়। জুনে শুরু হয় ইনসেপশন নামে এক মাস্টারপিসের দৃশ্যধারণ। ছয়টি দেশের বিভিন্ন লোকেশনে পরবরতী ছয় মাস ধরে এই মুভির দৃশ্যধারণের কাজ চলে।

নোলানকে এই মুভির জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছিলো ১৬০ মিলিয়ন ডলার। নোলানের খ্যাতি ওয়ার্নার ব্রো’সকে উদ্বুদ্ধ করে মুভির মার্কেটিং’এ আরো ১০০ মিলিয়ন ডলার খরচ করবার। তবে তাদের এই টাকা যে জলে যায়নি তা বলা যেতেই পারে। বিশ্বব্যাপী ৮২৯ মিলিয়ন ডলার কামানোর পাশাপাশি ইনসেপশন বাগিয়ে নিয়েছে চার চারটি একাডেমি এওয়ার্ড, নমিনেটেড হয়েছে আরো চারটির জন্যে। এমনকি তর্কসাপেক্ষে স্মরণকালের অন্যতম সেরা মুভিও এই ইনসেপশন। স্বপ্ন নিয়ে যে এর আগে পরে মুভি বানানো হয়নি তা নয়। কিন্তু নোলানের মত করে স্বপ্নকে তার অনির্দিষ্ট, অসীম সীমানায় কেউ বাঁধতে পারেনি। এজন্যেই বিশ্বজুড়ে অগণিত ভক্তের মনে জায়গা করে নিয়েছে নোলান এবং তার ইনসেপশন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইতিহাস, রাজনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সমসাময়িক যেকোন বিষয়ে লেখা পাঠাতে পারেন আপনিও

Latest Articles

কনসার্ট ফর বাংলাদেশ: বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশের প্রথম পরিচিতি

একটি দেশের স্বাধীন হবার পিছে কত কত ইতিহাসই না থাকে। সেই দেশের জনগনের আত্মত্যাগ, তাদের সমস্ত প্রতিরোধ, তাদের সমস্ত অর্জন। কোন কোন

Read More

মাইকেল ফেল্পস: সাঁতারের জীবন্ত কিংবদন্তী

DC সুপারহিরো অ্যাকুয়াম্যানকে সবাই কম বেশি চেনে। বাস্তব জগতেও কিন্তু আছেন এমনই এক জলের নিচের সুপার হিরো। কারো কাছে তিনি বাল্টিমোরের বুলেট,

Read More

বাংলা দেশ: জর্জ হ্যারিসনের অমর সৃষ্টি

বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ের খুব গভীর এক অনুভূতি নাম বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ। যার সাথে আর অন্য কোনো অনুভূতির তুলনা চলে না। মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের

Read More

নাসা প্রতিষ্ঠার ইতিকথা

৬২ বছর আগে, ১৯৫৮ সালের ২৯ জুলাই অর্থাৎ আজকের দিনে আমেরিকায় নাসা প্রতিষ্ঠিত হয়। সংস্থাটি বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রায় অন্যতম অগ্রপথিক। পৃথিবীতে যতগুলো স্পেস

Read More

Get Chalkboard Contents straight to your email!​