কনসার্ট ফর বাংলাদেশ: বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশের প্রথম পরিচিতি

একটি দেশের স্বাধীন হবার পিছে কত কত ইতিহাসই না থাকে। সেই দেশের জনগনের আত্মত্যাগ, তাদের সমস্ত প্রতিরোধ, তাদের সমস্ত অর্জন। কোন কোন দেশের স্বাধীনতার পিছে একটি বড় হাত থাকে বিশ্ব রাজনীতিরও। এ তো আর অজানা কথা নয় যে মুক্তিযুদ্ধের সময় পরাক্রমশালী আমেরিকা বাংলাদেশের বিপক্ষে ছিলো। পাকিস্তানকে সাহায্য করবার জন্যে তারা তাদের সপ্তম নৌবহরও পাঠিয়েছিল।

সময়টা ১৯৭১ সাল। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতার কথা তখন সবার মুখে মুখে। দেশের আপামর জনতা বীরবিক্রমে লড়াই করছে, কিন্তু লক্ষ লক্ষ পরিবার সীমানা টপকে যাচ্ছে ভারতে, সামান্য মাথা গোঁজার ঠাই পেতে, সামান্য আশ্রয়ের খোঁজে। যে যেভাবে পারে, ক্ষুদ্র এই দেশটাকে সাহায্য করবার চেষ্টা চালাচ্ছে। বাংলার ন্যায়সঙ্গত দাবিতে সমর্থন দিয়ে পাশে এসে দাঁড়ায় অনেক মানুষ, বাড়িয়ে দেয় সহায়তার হাত। তাদের সমস্ত উদ্যোগের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ‘কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’।

ভারতের বিখ্যাত সেতারবাদক পন্ডিত রবিশঙ্কর তখন জগদ্বিখ্যাত। বাংলার পাশে এসে দাঁড়ানো মানুষগুলোর মধ্যে তিনিও একজন। তিনি চাইলেন, সংগ্রামী এই দেশটাকে কোনভাবে সাহায্য করতে। পৃথিবীর মানুষের কাছে তুলে ধরতে, ছোট্ট এই বাংলার সবুজ মাটিতে কি অকাতরে প্রাণ যাচ্ছে, কি করে রক্তে রঞ্জিত হয়ে উঠছে উর্বর ভূমি। তার বন্ধু দ্য বিটলসের (The Beatles) গিটারিস্ট জর্জ হ্যারিসনকে জানালেন তার পরিকল্পনার কথা। জর্জ খুশি মনেই রাজি হলেন। কম্পোজ করলেন “Bangla Desh” গানটি। ঠিক করলেন রবিশঙ্করের “Joy Bangla” কম্পোজিশনের সঙ্গে তাঁর গান মিলিয়ে একটি অ্যালবাম বের করবেন, শুধু বাংলাদেশের জন্য।

কিন্তু রবিশঙ্করের পরিকল্পনা ছিলো অন্যরকম। তিনি বললেন, একটি কনসার্ট করলে কেমন হয়? জর্জ তার থেকে আরো এক ধাপ এগিয়ে। তিনি বললেন, কনসার্ট করলে বড়সড় কিছুই করি। কে জানতো, যে তাদের এই উদ্যোগ ইতিহাসের পাতায় সোনালি অক্ষরে খচিত হতে যাচ্ছে!১ অগাস্ট, ১৯৭১। কনসার্ট এর ভেন্যু আমেরিকার বিখ্যাত ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেন। মাত্র পাঁচ সপ্তাহের মধ্যে জর্জ সবকিছু গুছিয়ে ফেলেন। কনসার্টে যে কেবল রবিশঙ্কর আর জর্জ ছিলেন এমনটি মোটেও নয়। জর্জ তার বিটলস ব্যান্ডের পুরোনো সদস্যদের কনসার্টে আমন্ত্রণ জানান। পল ম্যাকারটনি সাফ মানা করে দেন। জন লেনন এবং মিক জ্যাগার আসতে চাইলেও, আইনি ঝামেলায় পড়ে তাদের আর আসা হয়ে উঠেনা। কেবলমাত্র রিঙ্গো স্টার হতাশ করলেন না বন্ধুকে। তিনি ঠিকই চলে এলেন সময়মতো।

বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা গিটারিস্ট এরিক ক্ল্যাপটনও হাজির ছিলেন এই কনসার্টে। হাজির ছিলের বব ডিলান, বিলি প্রিস্টন, লিয়ন রাসের, জর্জের নতুন ব্যান্ড ব্যাড ফিঙ্গারের সদস্যরাও। তাছাড়াও পারফর্ম করেন জিম কেল্টনার, জেস ডেভিস, ডন প্রিস্টন ও কার্ল র‍্যাডলি। ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকে ব্যাডফিঙ্গার (Badfinger) আর দ্য হলিউড হর্নস ব্যান্ড ছাড়াও ছিলেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা কয়েকজন শিল্পী – ডন নিক্স, জো গ্রিন, জেনি গ্রিন, মার্লিন গ্রিন, ডলরেস হল ও ক্লডিয়া লিনিয়ার। বাংলার আরেক কিংবদন্তি সরোদবাদক আলি আকবর খান ছিলেন, তবলায় ছিলেন আল্লা রাখা, তানপুরায় কমলা চক্রবর্তী।

কনসার্ট একটি হবার কথা থাকলেও আসলে কনসার্ট হয় দুটি। সন্ধ্যা ও বিকেলে। প্রায় চল্লিশ হাজার মানুষের সমাগমে কানায় কানায় ভরে যায় কনসার্টটি। কনসার্টগুলো দুটি অংশে ভাগ করা হয়। প্রথম অংশে, রবিশংকর আর ওস্তাদ আলী আকবর খাঁ পরিবেশন করেন একটি বাংলা ধুন। বাংলাদেশি একটি লোকসঙ্গীতের উপর ভিত্তি করে তাঁরা এটি কম্পোজ করেন। দ্বিতীয় অংশে ওয়েস্টার্ন গানগুলো রাখা হয়।

কনসার্ট দুটি ও অন্যান্য অনুষঙ্গ থেকে পাওয়া যায় প্রায় আড়াই লাখ ডলার। এই অর্থ পরে ইউনিসেফের মাধ্যমে শরণার্থীদের সাহায্যার্থে ব্যবহৃত হয়। প্রকাশিত হয় কনসার্টের লাইভ অ্যালবাম; যা রীতিমতো বিক্রির রেকর্ড গড়ে। একটি বক্স থ্রি রেকর্ড সেট এবং অ্যাপল ফিল্মসের তথ্যচিত্র ১৯৭২ সালে চলচ্চিত্র আকারে প্রকাশিত হয়। জর্জ হ্যারিসন এই মঞ্চেই গেয়ে শোনান তাঁর লেখা ও সুর করা ঐতিহাসিক ‘বাংলাদেশ’ গানটি, “NOW WON’T YOU LEND YOUR HAND AND UNDERSTAND? RELIEVE THE PEOPLE OF BANGLADESH”

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইতিহাস, রাজনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সমসাময়িক যেকোন বিষয়ে লেখা পাঠাতে পারেন আপনিও

Latest Articles

মিউনিখ চুক্তি: হিটলারের আগ্রাসন ঠেকানোর ব্যর্থ প্রচেষ্টা

১৯৩০ দশকের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি আন্তর্জাতিক চুক্তি হলো “মিউনিখ চুক্তি”। অবশ্য চুক্তির প্রেক্ষাপট বিচারে একে কূটনৈতিক চুক্তির চেয়ে আপস বলাই শ্রেয়। সেসময়

Read More

বাবি ইয়ার এর গণহত্যা: নাৎসি বাহিনীর নৃশংসতার এক ভয়াবহ চিত্র

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সমস্ত খুনোখুনির মধ্যেও ইউক্রেনের বাবি ইয়ার গণহত্যা একটি অন্যতম ঘটনা। ১৯৪১ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর, নাৎসি বাহিনী অধিকৃত

Read More

মহাবীর উইলিয়ামের ইংল্যান্ড অভিযানের আদ্যোপান্ত

মধ্যুযুগে ইংল্যান্ডের শাসনামল নিয়ে আলোচনা করার শুরুতেই ‘অ্যাংলো-স্যাক্সন’ রাজত্বের কথা অবধারিতভাবে চলে আসে। ৫ম থেকে ১১শ শতাব্দী পর্যন্ত শাসন করে আসা এই

Read More

গুগল: প্রযুক্তি দুনিয়ার অনন্য এক মহারথী

বর্তমানে আমরা যেকোনো বিষয় সম্পর্কে জানতে সর্বপ্রথম বই না খুলে সার্চ ইঞ্জিন এ খুঁজি। আর এক্ষেত্রে বেশিরভাগেরই প্রথম পছন্দ Google নামের সার্চ

Read More

টেলিভিশনে প্রথমবার আমেরিকার প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেট

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন মানেই টানটান উত্তেজনা আর বিশ্বব্যাপী উৎকন্ঠা। বিশ্বের সকল নামী-দামী সংবাদ মাধ্যমের চোখ তখন থাকে এই নির্বাচনের দিকে। আমেরিকান

Read More

ভাস্কো দ্য বালবোয়া: প্রশান্ত মহাসাগরের সন্ধান পাওয়া প্রথম ইউরোপিয়

একদম ছোটবেলা থেকেই আমরা পড়ে এসেছি পৃথিবীর ৩ ভাগ জল আর এক ভাগ স্থল। আর এর মাঝে সবচেয়ে বড় মহাসাগর হচ্ছে প্রশান্ত

Read More

Get Chalkboard Contents straight to your email!​