সত্যজিতের অপু: সৌমিত্র চ্যাটার্জি

“এ হল সৌমিত্র। আমার পরের ছবি অপুর সংসার-এ অপু চরিত্রে অভিনয় করছে।”

সত্যজিত রায় আমাদের বাঙালীদের জীবনকে অনেক ভাবে প্রভাবিত করেছেন, আলোকিত করেছেন, কিন্তু ওপরের কথাগুলো বলার সময় তিনি ঠিক করে ফেলেছিলেন আমাদের তিনি দিয়ে যাবেন আরেকজন কিংবদন্তি, আমাদের অপু কিংবা ফেলুদা। তাঁর নাম সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

‘জলসাঘর’ ছবির শুটিং দেখতে গিয়েছিলেন বাইশ বছরের যুবক সৌমিত্র। তখন সদ্য কলেজ শেষ করেছেন, অল্প অল্প করে বিচরণ শুরু করেছেন শিল্পের বিভিন্ন ক্ষেত্রে। ঠিক দু’বছর আগেই সত্যজিত তাকে বলেছিলেন অপু চরিত্রের জন্য তিনি আরো কমবয়সী কাউকে খুজছেন, তাই পরিচালকের পছন্দ সত্ত্বেও ‘অপরাজিত’ ছবিটি করা হয়নি সৌমিত্রের। সেই একই ব্যাক্তি যখন দু’বছর পর হঠাৎ করে ঘোষণা দিয়ে বসলেন তিনিই হতে যাচ্ছেন পরবর্তী অপরাজিত, তখনকার অনুভূতি হয়তো সৌমিত্র নিজেও প্রকাশ করতে পারবেন না পুরোপুরি।

তার পরে হয়তো অনেকবারই তিনি পিছে ফিরে তাকিয়েছেন, কিন্তু কখনও পিছে ফিরে তাঁকে যেতে হয়নি এটা নিশ্চিত করে বলা যায়। সত্যজিত রায়ের তৈরি ৩৪ টি চলচিত্রের ১৪ টিতে অভিনয় করেছেন এবং আমাদেরকে শুধু মুগ্ধই করেননি, এটাও বুঝিয়েছেন মূলধারা মানেই শুধু চকমকে পরিবেশ আর জনপ্রিয়তার ঘনঘটা না, স্বাভাবিক শান্ত পরিবেশে কীভাবে তৈরি করা যায় অভিনয়ের মূর্ছনা আর কীভাবে দর্শককে তা নিয়ে যায় সেই অলীক জগতে- তা দেখিয়েই দিয়েছেন।

একটু পেছনে ফিরে যাওয়া যাক। কলকাতার সিটি কলেজ থেকে প্রথমে আইএসসি ও পরে বিএ অনার্স (বাংলা) পাশ করার পর থেকেই কলেজ জীবনের মঞ্চে অভিনয়ের শক্তি পূঁজি করে অল্প অল্প করে পা রাখছিলেন স্বপ্নের জগতে। তাঁর পথচলাটা কিন্তু শুরু হয়েছিল অল ইন্ডিয়া রেডিও তে ঘোষক হিসেবে। শিশির ভাদুড়ির একটি নাটক দেখে অভিনয়ই করবেন ঠিক করা সৌমিত্র পরবর্তী প্রায় ছয় যুগ একের পর এক মুক্তো যুক্ত করেছেন তাঁর মুকুটে।

ছোটবেলাটা তার কেটেছে বিভিন্ন স্কুলে পড়ে। বাবার ওকালতি চাকরির নিয়মিত বদলীই ছিল এর মূল কারণ। তবে তা হয়তো ভালোই হয়েছিলো সৌমিত্রের জন্য। জীবনের ছোট থেকে ছোট অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তিনি পরবর্তীতে সতেজ করে তুলেছেন প্রত্যেকটি কালজয়ী চরিত্রকে। ফেলুদার মত একটি চরিত্রকে ফুটিয়ে তোলা, তাও আবার এতটা জনপ্রিয়তার সাথে- চাট্টিখানি কথা নয়। চোখ বন্ধ করলে আজ ফেলুদার পাঠক ও দর্শকরা ফেলুদা-সৌমিত্র এ দুজনকে হয়তো আলাদা করতে পারবেন না। অপরাজিত তে তার বলা প্রত্যেকটি কথা যেন বাঙালী মধ্যবিত্ত স্বপ্নবাজ সব যুবককে চিত্রিত করে। প্রত্যেকটি চরিত্রকে এত জীবন্ত ও অন্তর্নিহিত করতে পারার ক্ষমতা আছে বলেই হয়তো তিনি থেকে যাবেন আমাদের অন্তরে।

পুরষ্কার দিয়ে সৌমিত্রকে তুলনা করাটা বোকামী, কিন্তু তাঁর অর্জনের ঝুলিটির ব্যাপকতা না বলাটা অপরাধতূল্য। দু’ বার চলচ্চিত্রে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন ২০০১ ও ২০০৮ সালে। ২০১২ সালে তিনি ভারতের সর্বোচ্চ চলচ্চিত্র পুরস্কার দাদাসাহেব ফালকে গ্রহণ করেছেন।পেয়েছেন ফ্রান্স সরকারের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরষ্কার। এছাড়াও আরো অসংখ্য পুরষ্কার বাড়িয়েছে তাঁর নামের সৌহার্দ্য।

তবে এখনও থেমে নেই সৌমিত্র। অবসরের মানে হয়তো তিনি জানেন না। করে যাচ্ছেন একের পর এক চলচ্চিত্র, লিখে যাচ্ছেন কবিতা, আলো ছড়াচ্ছেন মঞ্চে। কিছুদিন আগে জয় করেছেন করোনাকে, যা বলে দিচ্ছে আরও অনেক দিন আমাদের মুগ্ধ করবেন এই সত্যিকারের অপরাজিত- সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইতিহাস, রাজনীতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সমসাময়িক যেকোন বিষয়ে লেখা পাঠাতে পারেন আপনিও

Latest Articles

না ফেরার দেশে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

অভিনেতা,আবৃত্তিকার কিংবা কবি- প্রতিটি পরিচয়েই তিনি ছিলেন সেরাদের একজন। সত্যজিৎ রায় তাঁর মধ্যেই খুঁজে পেয়েছিলেন পথের পাঁচালীর অপুকে। সেই সৌমিত্র আমাদের ছেড়ে

Read More

সেপ্টেম্বর অন যশোর রোড : পরম বন্ধুর অমূল্য উপহার

পংক্তি সংখ্যা ১৫২। ধারণ করে আছে বাংলাদেশের অপাংক্তেয় এক আবেগকে। প্রতিনিধিত্ব করছে বাংলাদেশের অসামান্য আত্মত্যাগের ইতিহাসকে। পংক্তির পর পংক্তি এক আশ্চর্য অনুভূতিতে

Read More

মোহনবাগান ‘অমর’ একাদশের এফ এ শিল্ড জয়!

স্বদেশী বিপ্লবীরা ভাবতো, কেবল সশস্ত্র আন্দোলনের মাধ্যমেই ব্রিটিশরাজের সূর্য অস্তমিত করা সম্ভব। মঙ্গল পাণ্ডে থেকে ক্ষুদিরাম বসু, চন্দ্রশেখর আজাদ থেকে ভগৎ সিং-সকলেই

Read More

অ্যানিমে: বিনোদন জগতের সুবিশাল এক রাজ্য

জাপানিজ এনিমেশন, বা এনিমে শব্দটি আজকাল বেশ পরিচিত আমাদের কাছে। জাপানে যদিও এনিমে মানে সকল প্রকার এনিমেশনই বুঝায়, বাইরের দেশগুলোতে তার ঠিক

Read More

প্রতিচ্ছায়াবাদের রূপকার ক্লদ মোনে

ইম্প্রেশনিজম (Impressionism) শব্দটির আক্ষরিক বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায় “প্রতিচ্ছায়াবাদ”। চিত্রাঙ্কন জগতে ‘ইম্প্রেশনিজম’ মানে হলো ইঙ্গিতে ছবি আঁকা। এর বৈশিষ্ট্য হলো, এই ধারার

Read More

Get Chalkboard Contents straight to your email!​